জমি বা ভূমির নামজারি, খতিয়ান, তফসিল, দাগ নাম্বার, পর্চা, খারিজ সহজ ভাষায় জেনে নেই

খারিজ, নামজারি কাকে বলে

আজকে আমরা জমি সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিষয় জানবো

মৌজা কাকে বলে?
খতিয়ান কাকে বলে?
দাখিলা বলতে কি বুঝায়?
নামজারি কি?
তফসিল বলতে কি বুঝায়?
দাগ বা কিত্তা কাকে বলে?
পর্চা কাকে বলে?
খারিজ কাকে বলে?


মৌজা কাকে বলে?

মৌজা জরিপ কাজের সুবিধার জন্য ব্যবহৃত একটি ইউনিট। একটি উপজেলাকে কতগুলো অংশে ভাগ করা হয় জরিপ সুবিধার জন্য। এই প্রত্যেকটি অংশকে একটি মৌজা বলে। একটি গ্রামে এক বা একাধিক মৌজা থাকতে পারে। অনেক সময় দুইটি গ্রাম মিলেও একটি মৌজা হয়।

খতিয়ান কাকে বলে?

খতিয়ান একটি আরবি শব্দ। জরিপের সময় মৌজার ভিত্তিতে এক বা একাধিক জমির মালিকের জমির বিবরণ সম্বলিত একটি ভূমি রেকর্ড তৈরি করা হয়, যাকে খতিয়ান বলা হয়। এর মধ্যে রয়েছে ভূমধ্যাধিকারীর নাম, পরিমাণ, জমির দাগ নং, জমির প্রকৃতি, খাজনার হার ইত্যাদি। 

দাখিলা বলতে কি বুঝায়?

জমির খাজনা বা উন্নয়ন কর পরিশোধ করলে ভূমি অফিসের পক্ষ হতে যে রশিদটি দেয়া হয় তাকে দাখিলা বলে। জমির মালিকানা স্বত্ত্ব প্রমাণ করার জন্য এই রশিদটি পেশ করতে হয়।

নামজারি কি?

নামজারি হলো খতিয়ানে জমির মালিকের নাম লিপিবদ্ধ করা। ক্রয়সূত্রে বা উত্তরাধিকার সূত্রে অথবা অন্য যেকোন সূত্রে মজির নতুন মালিক হলে সেই নতুন মালিকের নাম সরকারি খতিয়ানভুক্ত করাকে নামজারি বলে।

তফসিল বলতে কি বুঝায়?

জমি পরিচিতির বিস্তারিত বিবরণকে তফসিল বলে। মৌজার নাম, নাম্বার, ধতিয়ান নাম্বার, দাগ নাম্বার, জমির চৌহদ্দি, পরিমাণ সহ বিস্তারিত বিবরণ তফসিলে উল্লেখ থাকে।

দাগ বা কিত্তা কাকে বলে?

সহজ কথায় বলতে গেলে দাগ বা কিত্তা বলতে বুঝায় জমির নাম্বার বা চিহ্নকে। জরিপ ম্যাপ প্রস্তুত করার সময় মৌজার নক্সায় প্রত্যেকটি ভূমি খণ্ডকে পৃথক পৃথক নাম্বার দেয়া হয়, যাতে সহজে ভূমিটি চিহ্নিত করা যায়। এই নাম্বারকে দাগ নাম্বার বলে।
 

পর্চা কাকে বলে?

ভূমি জরিপের সময় চূড়ান্ত খতিয়ান প্রস্তুত করার পূর্বে ভূমি মালিকদের যে খসড়া খতিয়ানের কপি দেয়া হয় তাকে মাঠ পর্চা বলে। এই মাঠ পর্চা রাজস্ব অফিসার কর্তৃক সত্যায়ন হওয়ার পর যদি কোন আপত্তি থাকে তাহলে তা শোনানি হয়। সেই শোনানির পর খতিয়ান চূড়ান্তভাবে প্রকাশ করা হয়। সেই চূড়ান্ত খতিয়ানের অনুলিপিকে পর্চা বলে।

খারিজ কাকে বলে?

জমা খারিজ হলো যৌথ ভূমি বিভক্ত করে আলাদা নতুন খতিয়ান তৈরি করা। কোন জোতের কোন জমি বণ্টনের কারনে মূল খতিয়ান থেকে কিছু জমি নিয়ে নতুন খতিয়ান খোলাকে খারিজ বলে। সহজ কথায় পূর্বের খতিয়ান থেকে আলাদা করে নতুন একটি খতিয়ান তৈরি করাকে খারিজ বলে।

আরও পড়ুন: জমির শতাংস বা কাঠা বের করার নিয়ম

Post a Comment

Previous Post Next Post